প্রিয় হিমু ভাই

Estimated read time 0 min read

প্রিয় হিমু ভাই,

আমার খুব ইচ্ছে করে তোমার মত হলুদ পাঞ্জাবী পরে, খালি পায়ে রাস্তায় রাস্তায় হেঁটে বেড়াতে। তোমাকে অনেক খুজেছি দুপুরের ঝাঁঝাঁ রোদে রাস্তায় রাস্তায়, কোন এক ভিড় রেল ক্রসিং সিগন্যালে। তোমাকে খুঁজে পাইনি, তবু মন বিশ্বাস করে সত্যি তুমি আছো। হলুদ রং এখন বেশ ভালো লাগে, খুব ইচ্ছা করে হলুদ রং হাতে মাখতে, গালে মাখতে। কথা দিলাম তোমায়, তোমার হলুদ পাঞ্জাবী আমি একদিন ঠিক পরবো, তোমার দেখানো পথে ঠিক একদিন তোমার মত খালি পায়ে হাঁটবো।

তোমার মত চেষ্টা করছি অন্যের সামনে নিজেকে লুকিয়ে রাখতে। চেষ্টা করছি কেউ যেন আমাকে কখনো চালাক বা বুদ্ধিমান মনে না করে। তুমি তো বিশ্বাস করো – মহাপুরুষরা চালাক বা বুদ্ধিমান হয় না, আবার বোকাও হয় না। পৃথিবীর এই অনিত্য জগতে বুদ্ধির স্থান নেই। বুদ্ধি দিয়ে এই জগতে বোঝবার চেষ্টা না করতে। চেতনা দ্বারা বোঝবার চেষ্টা না করতে। বুদ্ধি চেতনাকে নষ্ট করে। তোমার বিশ্বাসই আমার বিশ্বাস, তোমাকে হতাশ করবো না হিমু ভাই।

তোমার বাবার উপদেশ মত আমি আমার ভালোবাসা লুকিয়ে রাখার আপ্রাণ চেষ্টা করছি। আমার পছন্দের মানুষদের সাথে আমি রূঢ় আচরণ করছি, যেন তারা আমার কাছথেকে কখনো বুঝতে না পারে যে তারা আমার পছন্দের মানুষ। হিমু ভাই, তুমি এক দিন এসে আমাকে নিয়ে যাও, কবে আসবে তুমি? আমার নীলপদ্ম আমি খুঁজে পাচ্ছি না, কি করবো বুঝতে পারছি না। তুই তো বলেছিলে –

“সৃষ্টিকর্তা বা প্রকৃতি প্রতিটি ছেলেমেয়েকে পাঁচটি অদৃশ্য নীলপদ্ম দিয়ে পৃথিবীতে পাঠান। এই নীলপদ্মগুলি হলো প্রেম ভালোবাসা। যেমন ধরো তুমি। তোমাকে পাঁচটি নীলপদ্ম দিয়ে পাঠানো হয়েছে। এখন পর্যন্ত তুমি কাউকে পাওনি যাকে পদ্ম দিতে ইচ্ছে করেছে। কাজেই তুমি কারোর প্রেমে পড়নি।”

আমার নীলপদ্ম তো আমি কাউকে দিইনি, তবে একটাও খুঁজে পাচ্ছি না কেন? তাহলে আমাকে কি নীলপদ্ম দিয়ে পাঠানো হয়নি? আমি কিছু বুঝতে পারছি না। তুমি একবার এসো, খুব প্রয়োজন তোমাকে। আমি দুপুরে জেগেই থাকি, তুমি রাস্তা থেকে আমার নাম ধরে ডেকো, আমি ঠিক শুনতে পাবো। অপেক্ষায় রইলাম, হিমু ভাই।

সঞ্জয় হুমানিয়া
১৯সে জুলাই ২০১৭ বেঙ্গালুরু, কর্ণাটক, ইন্ডিয়া

★ আমার লেখায় অজস্র বানান ভুল থেকে যায়, পাঠকের চোখে পড়লে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন ★

+ There are no comments

Add yours